ঢাকা, সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪
আপডেট : ২৮ মার্চ, ২০২৩ ১৭:৩৩

‘মেসি বিশ্ব ফুটবলের শাসক’

ক্রীড়া ডেস্ক
‘মেসি বিশ্ব ফুটবলের শাসক’


আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতানো মেসির মুকুটে প্রতিদিনই যোগ হচ্ছে কোনো না কোনো পালক। এই তো সেদিন মেসির নামে জাতীয় দলের অনুশীলন সেন্টারের নামকরণ করেছে আর্জেন্টিনার ফুটবল ফেডারেশন।
এবার দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল কনফেডারেশনের (কনমেবল) তৈরি করল মেসির ভাস্কর্য। যা থাকবে কনমেবলের জাদুঘরে। আর্জেন্টাইন অধিনায়কের এই ভাস্কর্য রাখা হবে পেলে ও ডিয়েগো ম্যারাডোনার ভাস্কর্যের পাশে। শুধু কী তাই, এদিন কনমেবল প্রেসিডেন্ট আলেহান্দ্রো দমিনগেজ মেসিকে বিশ্ব ফুটবলের ‘শাসক’ ঘোষণা করেছেন।
গত বছরের ডিসেম্বরে বিশ্বকাপ জেতার আগেও আরও দুটি আন্তর্জাতিক ট্রফি জিতেছিলেন মেসি। ২০২১ সালে ব্রাজিলকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা জেতার পর ইতালিকে হারিয়ে লা ফিনালিসিমা।

সোমবার (২৭ মার্চ) বিশ্বকাপ ট্রফির রেপ্লিকা ও ফিনালিসিমা ট্রফির রেপ্লিকা উপহার দেয়া হয় মেসির হাতে। এই সময় মেসির কোচ ও সতীর্থদের হাতেও কোপা আমেরিকা ট্রফিসহ বিশ্বকাপ ও ফিনালিসিমা ট্রফির ছোট রেপ্লিকা দেয়া হয়। মূলত প্যারাগুয়েতে সোমবার অনুষ্ঠিত হয়েছে কোপা লিবার্তাদোরেসের ড্র। এই আয়োজনের সময়েই বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা দলকে সম্মাননা দেয়া হয়।
এই সময়ে মেসির হাতে ‘ফুটবলের ব্যাটন’ তুলে দিয়ে কনমেবল প্রেসিডেন্ট আলেহান্দ্রো দমিনগেজ বলেছেন, ‘দক্ষিণ আমেরিকা ও বিশ্ব ফুটবলের নামে আজ বিশ্ব ফুটবলের নেতৃত্ব ও শাসনভার তোমার হাতে তুলে দিলাম।’

উচ্ছ্বসিত মেসিও সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন, ‘ঈশ্বরকে ধন্যবাদ, ফুটবল ক্যারিয়ারে আমি সবকিছুই অর্জন করতে পেরেছি। আমার সব সতীর্থদের ধন্যবাদ, এত সুন্দর উপহার দেয়ার জন্য। কনমেবলকেও ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমরা খুবই বিশেষ আর দারুণ একটি মুহূর্তে কাটাচ্ছি। অনেক অনেক ভালোবাসা পাচ্ছি। লাতিন আমেরিকান কোনো দেশের বিশ্বকাপ জেতার সময়ই ছিল এটা।’

কনমেবল জাদুঘরে নিজের ভাস্কর্য হবে, এমনটা কখনো ভাবেননি মেসি। এমন সম্মান পেয়ে উচ্ছ্বসিত মেসি বলেছেন, ‘এটা আসলেই অনেক বড় অর্জন। আমি কখনো এমন কিছু পাওয়ার কথা ভাবিওনি।’

উপরে