ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪
আপডেট : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ১৭:২৬

শরীরকে আকর্ষনীয় করে তুলতে গিয়ে মৃত্যু হলো পপ তারকার

বিনোদন ডেস্ক
শরীরকে আকর্ষনীয় করে তুলতে গিয়ে মৃত্যু হলো পপ তারকার

 

নিজ শরীরকে আরও বেশি আকর্ষনীয় করতে গিয়ে মারা গেলেন ব্রাজিলিয়ান পপ তারকা দানি লি। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৪২। সূত্রের খবর, লাইপোসাকশন সার্জারির সময়ে জটিলতার কারণে মারা যান তিনি।

গায়িকা দানি লি ব্রাজিলে ব্যাপকভাবে জনপ্রিয় ছিলেন। শৈশবে তার নিজের শহরে ফ্যাশন শোতে অংশ নিয়েছিলেন। সেই থেকেই নাকি ফ্যাশনিস্তা তিগত শুক্রবার, নিজেকে নিখুঁত করার জন্যেই একটি অস্ত্রোপচার হয়েছিল গায়িকার। মেদবহুলতার কারণে তিনি তার পেট এবং পিঠে লাইপোসাকশনের পাশাপাশি ‘ব্রেস্ট রিডাকশন’ করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত, সেই প্রক্রিয়া চলাকালীন তিনি শারীরিক জটিলতার সম্মুখীন হন। তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয়। সেই সময়েই মৃত্যু হয় লি’র।

গায়িকার আসল নাম ড্যানিয়েল ফনসেকা মাচাদ। এই ঘটনায় শোকাহত গায়িকার পরিবার। লি-র স্বামী মার্সেলো মিরা বলেছেন, ‘এই ঘটনায় আমরা ভীষণ মর্মাহত।’ সূত্রের খবর, এরই মধ্যে গায়িকার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে। মার্সেলো এবং লিয়ের ৭ বছরের এক কন্যা রয়েছে। গায়িকার মৃত্যুর খবর পরিবারের তরফে ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শেয়ার করা হয়। শেষ যাত্রায় একটি বৃহত্তর অনুষ্ঠান আয়োজন করা হবে পরিবারের তরফে। পপ তারকাকে চিরবিদায় জানাতে সেদিন সমবেত হবেন তাঁর অনুরাগীরা।

প্রসঙ্গত, ৪২ বছর বয়সী দানি লি-র অন্যতম হিট গান হল 'Eu sou da Amazonia' (আমি আমাজন থেকে এসেছি) এর পরেই তিনি ব্রাজিলে ব্যাপকভাবে পরিচিতি লাভ করেন। দানির জন্ম আমাজন জঙ্গলের আফুয়ায়। মাত্র ৫ বছর বয়স থেকেই গান গাওয়া শুরু করেন তিনি। মাত্র ১৭ বছর বয়সে নিজের শহরে প্রতিভা প্রদর্শনীতে অংশ নেয়ার পর, তিনি ম্যাকাপাতে চলে যান। দানি লি শেষ গানটি মাত্র দু'মাস আগে প্রকাশিত হয়েছিল।

এদিকে, একই রকম একটি ঘটনায়, গত বছর জনপ্রিয় ব্রাজিলিয়ান সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার লুয়ানা অ্যানড্রেডেরও মৃত্যু হয়েছিল। সাও পাওলোর এক হাসপাতালে হাঁটুতে লাইপোসাকশন সার্জারি করার পর দুঃখজনকভাবে মারা যান লুয়ানা। কসমেটিক পদ্ধতির সময় জটিলতা দেখা দেয়ার পরে ২৯ বছর বয়সী ইনফ্লুয়েন্সারের ৪ বার কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে হয়েছিল বলে জানা যায়।

উপরে