ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪
আপডেট : ৪ এপ্রিল, ২০২৪ ১৭:৩৬

ঋণ পরিশোধের জন্য নতুন ঋণ নিচ্ছে সরকার, দাবি সিপিডির

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঋণ পরিশোধের জন্য নতুন ঋণ নিচ্ছে সরকার, দাবি সিপিডির


ঋণ পরিশোধের জন্য সরকার নতুন করে ঋণ নিচ্ছে বলে দাবি করেছে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)। বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ‘বাংলাদেশের বৈদেশিক ঋণ ও ঋণ পরিশোধের সক্ষমতা’ নিয়ে একটি প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে এ কথা বলেন সিপিডির সম্মানীয় ফেলো ড. মোস্তাফিজুর রহমান। সিপিডির সঙ্গে যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে এশিয়া ফাউন্ডেশন।

প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে সিপিডির সম্মানীয় ফেলো ড. মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছে, বাংলাদেশের ঋণ ও পরিশোধের বাধ্যবাধকতা বাড়ছে, যা সরকারকে অপর্যাপ্ত রাজস্ব আদায়ের মধ্যে ঋণ পরিশোধের জন্য ক্রমাগত নতুন ঋণ নিতে বাধ্য করছে। তিনি বলেন, প্রকৃতপক্ষে আমরা পাবলিক ও পাবলিকলি গ্যারান্টিযুক্ত ঋণের দায়বদ্ধতার একটি বড় অংশ পরিশোধের জন্য ঋণ নিচ্ছি। তাই দ্রুত অভ্যন্তরীণ সম্পদ সংগ্রহ বাড়ানো ছাড়া কোনো বিকল্প নেই।

ড. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বৈদেশিক ঋণ এবং ঋণ পরিশোধের বাধ্যবাধকতার হার বেড়েছে। ২০২৩ সালের জুনে বাংলাদেশের সরকারি ও বেসরকারি বিদেশি ঋণ ছিল ৯৮ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলার, যা একই বছরের সেপ্টেম্বরে ১০০ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করেছে। তিনি বলেন, বর্তমানে বিদেশি ঋণ-জিডিপি অনুপাত ২১ দশমিক ৬ শতাংশ তুলনামূলকভাবে বেশি নয়। ঋণ পরিশোধের সক্ষমতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

উপরে