ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
আপডেট : ১৬ মার্চ, ২০২৩ ১৭:৫৪
আইনজীবী সমিতির নির্বাচন

ফের আওয়ামী লীগ ও বিএনপির ধস্তাধস্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক
ফের আওয়ামী লীগ ও বিএনপির ধস্তাধস্তি


সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ভোটকে কেন্দ্র করে আজও আওয়ামী লীগ ও বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের মধ্যে ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার ভোট শুরুর পর দুপুর সোয়া ১২টার দিকে দুই পক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়। নির্বাচন পরিচালনা সংক্রান্ত কমিটি নিয়ে দ্বন্দ্বে আদালত চত্বরে উত্তেজনা বিরাজ করছে। দুই পক্ষের আইনজীবীরা নানা ধরনের স্লোগান দিচ্ছেন। জানা গেছে, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনের বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা একটি মিছিল বের করেন। ভোট মানি না বলে স্লোগান দিতে থাকেন তারা। ভোটকেন্দ্রের দিকে যাওয়ার সময় আওয়ামী লীগপন্থী আইনজীবীরা তাদের বাধা দেন। এ সময় দুই পক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়।

এখন আদালত এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি তেমনটা নেই। মাইকে ভোট দেয়ার জন্য আইনজীবীদের আহ্বান জানানো হচ্ছে। গতকাল বুধবারও হট্টগোল, হইচই ও ধাক্কাধাক্কির মধ্য দিয়ে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির এবারের নির্বাচনের (২০২৩-২৪) প্রথম দিনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়। নির্বাচন পরিচালনাসংক্রান্ত কমিটি নিয়ে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি-সমর্থিত আইনজীবীদের মধ্যে দ্বন্দ্বের জের ধরে এই হট্টগোলের সৃষ্টি হয়। হট্টগোলের কারণে প্রথম দিন নির্ধারিত সময় সকাল দশটায় ভোটগ্রহণ শুরু করা যায়নি। নির্ধারিত সময়ের প্রায় দুই ঘণ্টা পর ভোটগ্রহণ শুরু হয়।

উত্তেজনার মধ্যে বৃহস্পতিবার সকালে ভোটগ্রহণ শুরু হলেও সোয়া দুই ঘণ্টা যেতে না যেতেই আদালত প্রাঙ্গণে ফের উত্তেজনা দেখা দেয়। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় পাঁচ শতাধিক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এদিকে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় পুলিশের হামলার শিকার হয়েছেন অন্তত ১০ সাংবাদিক। গতকাল বুধবার আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে এ ঘটনা ঘটে। আহত ব্যক্তিদের মধ্যে এটিএন নিউজের সাংবাদিক জাবেদ আক্তারের অবস্থা গুরুতর। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সভাপতি একটি, সহসভাপতি দুটি, সম্পাদক একটি, কোষাধ্যক্ষ একটি, সহসম্পাদক দুটি ও সদস্যের সাতটিসহ মোট ১৪টি পদে এক বছর মেয়াদের জন্য এই নির্বাচন হয়ে থাকে। এই ১৪টি পদের বিপরীতে ২৯ জন প্রার্থী রয়েছেন। এবারের নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ৮ হাজার ৬০২ জন আইনজীবী। বর্তমান কমিটিতে সভাপতি ও সম্পাদকসহ সাতটি পদে আছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত আইনজীবীরা। সহসম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষসহ অপর সাতটি পদে আছেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

উপরে