ঢাকা, শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২২
আপডেট : ১২ নভেম্বর, ২০২২ ১৭:১৫

জ্বালানির নতুন উৎসের খোঁজে বাংলাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
জ্বালানির নতুন উৎসের খোঁজে বাংলাদেশ

জ্বালানির নতুন উৎসের খোঁজ করছে বাংলাদেশ। জ্বালানি কিনতে ইতিমধ্যে ব্রুনাইয়ের কাছে প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে, সৌদি আরবের সাথে যোগাযোগও শুরু করেছে সরকার।

শুক্রবার রাজধানীর বারিধারায় নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ অবশ্য বলেছেন, জ্বালানি নিয়ে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) সঙ্গে বাংলাদেশের কোনো কথা হয়নি। ব্রুনাই থেকে দীর্ঘমেয়াদে গ্যাস আনতে প্রতিনিধিদল পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার।
এদিকে, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে উদ্ভূত সংকটে জ্বালানির সমীকরণ ঘুরে গেছে। বিপাকে পড়েছে উন্নত দেশগুলো। তাই বাংলাদেশকেও নানা ভাবনায় নতুন ছক কষতে হচ্ছে। বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী জানান, এক হাজার মেগাওয়াটের সৌর বিদ্যুতে বিনিয়োগে আগ্রহ দেখিয়েছে সৌদি আরব। দেশটি থেকে ২০২৮-২৯ এর দিকে গ্যাস পাওয়া যাবে। এখনই সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদনে বিনিয়োগ করতে চায় সৌদি আরব।
উল্লেখ্য, ব্রুনেইয়ের সুলতানের সফরকালে জ্বালানি কিনতে প্রস্তাব দেয় বাংলাদেশ। তবে এখনও কোন সাড়া মেলেনি। সংকট উত্তরণে সরকারের প্রচেষ্টার কমতি নেই বলেও জানান বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী।

দিকে সমুদ্র থেকে গ্যাস পাওয়ার বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাগর থেকে গ্যাস তোলার জন্য দুবার টেন্ডার দেয়া হয়েছে। ডিসেম্বর জানুয়ারিতে আবারও এখানে টেন্ডার দেয়া হবে। সাগর থেকে গ্যাস তোলা কষ্টসাধ্য। বিনিয়োগ করেও সফলতা পাওয়ার শতভাগ সম্ভাবনা থাকে না। বাপেক্সকে দিয়ে এটা করা যাবে না। তবে বাপেক্স বিদেশি কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করে কাজ করতে পারে।

উপরে