ঢাকা, রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০
আপডেট : ১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২১:১২

ভোটের ফল প্রত্যাখ্যান করে হরতাল ডাকল বিএনপি

প্রতিদিন ডেস্ক
ভোটের ফল প্রত্যাখ্যান করে হরতাল ডাকল বিএনপি
ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুলে তার প্রতিবাদে রোববার ঢাকায় হরতাল ডেকেছে বিএনপি। শনিবার ভোট শেষে রাতে ফল ঘোষণার মধ্যে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেছে দলটি। 

রাত ৮টার পর ফখরুল যখন এই সংবাদ সম্মেলন করেন, সে সময় দুই সিটিতেই ভোটের ফলে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীরা এগিয়ে ছিলেন।

নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “আমরা এই নির্বাচনকে সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখ্যান করছি। এর প্রতিবাদে রোববার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করা হবে।”

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জনকারী বিএনপি ওই নির্বাচনের প্রথম বর্ষপূর্তি ঘিরে ২০১৫ সালের শুরু থেকে টানা তিন মাস হরতাল-অবরোধ করে। এরপর এই প্রথম হরতালের ডাক দিল তারা। 

পাঁচ বছর আগের ওই আন্দোলনের সময় বাসে আগুন ও পেট্রোল বোমা নিক্ষেপসহ নাশকতার নানা ঘটনায় দেড় শতাধিক মানুষের প্রাণহানি ঘটে।

ওই আন্দোলনে গিয়ে বিএনপির ‘ক্ষতি’ হয়েছিল স্বীকার করে মির্জা ফখরুল কয়েক দিন আগেই বলেছিলেন, সেই ক্ষত সারাতে এখনও তাদের বেগ পেতে হচ্ছে। তাই হঠাৎ করে হঠকারী কোনো সিদ্ধান্ত নিতে চান না তিনি।

গত ১৭ জানুয়ারি এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেছিলেন, “আমরা আজকে হঠাৎ করে হঠকারী কোনো সিদ্ধান্ত নিয়ে নিশ্চিহ্ন হয়ে যেতে চাই না। আমাদের অভিজ্ঞতা আছে ২০১৪ সালের নির্বাচনের সময়ে এবং ২০১৫ সালের আন্দোলনের সময়ে আমাদের যে ক্ষতি হয়েছে, সেই ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে এখনও আমাদের অনেক বেগ পেতে হচ্ছে।”

এই উপলব্ধি প্রকাশের পর দুই সপ্তাহ না হতেই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অনিয়ম-কারচুপির অভিযোগ তুলে হরতালের ডাক দিল বিএনপি। মাঠে থেকে তাদের এই কর্মসূচি প্রতিহতের ঘোষণা দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

বিএনপি হরতালের ডাক দেওয়ার পর বনানীতে মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলামের নির্বাচনী কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, “উত্তর ও দক্ষিণে বিএনপি মনোনীত প্রার্থীরাও নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ উত্থাপন করে নাই। বিএনপি শুধু পরাজয়ের আশঙ্কায় যখন নিশ্চিত পরাজয়ের দ্বারপ্রান্তে সে সময় তড়িঘড়ি করে এই হরতাল ডেকে বিএনপি আসলে তাদের রাজনৈতিক দীনতা প্রমাণ করেছে।”

জনগণের ‘স্বার্থবিরোধী ও জনগণবিরোধী’ কোনো কর্মসূচি এই বাংলাদেশের জনগণ ‘বরদাস্ত করবে না’ বলে মন্তব্য করেন তিনি।

হরতাল প্রতিহতের ঘোষণা দিয়ে হানিফ বলেন, “নিজেদের পরাজয়ের লজ্জাজনক ব্যর্থতা ঢাকার জন্য হরতালের মতো কোনো অগণতান্ত্রিক কর্মসূচি ঢাকা শহরবাসী মেনে নেবে না এবং আওয়ামী লীগের সকল নেতাকর্মীসহ জনগণ প্রস্তুত আছে এই ধরনের যে কোনো অপতৎপরতাকে কঠোরভাবে প্রতিহত করার জন্য।”

উপরে