ঢাকা, রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০
আপডেট : ৩০ জুন, ২০২০ ১৮:১৭

লঞ্চডুবি: অভিযান সমাপ্তির পরেও ভেসে উঠলো লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
লঞ্চডুবি: অভিযান সমাপ্তির পরেও ভেসে উঠলো লাশ


রাজধানীর শ্যামবাজার এলাকা সংলগ্ন বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চডুবির ঘটনায় আবদুর রহমান বেপারী (৪৫) নামে আরও এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।
মঙ্গলবার দুপুরে তল্লাশি অভিযান সমাপ্তি ঘোষণার পর বিকাল ৫টায় লাশটি ভেসে উঠলে নৌ পুলিশ সদস্যরা উদ্ধার করেন। এ নিয়ে লঞ্চডুবির ঘটনায় মোট ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হল।
নৌ পুলিশ সদরঘাট থানার এসআই মো. শহীদ গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
আবদুর রহমান বেপারী মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ির আবদুল্লাহপুরের মৃত শমসের বেপারীর ছেলে। সোমবার আবদুর রহমান বেপারী ৭ বছরের শিশু সিফাত ও স্ত্রী হাসিনার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে লঞ্চডুবির ঘটনায় এক পরিবারের ৩ জন প্রাণ হারালেন।
এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে উদ্ধার অভিযান সমাপ্তি ঘোষণার আগে অনিক (১৮) নামের এক তরুণের লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনি মুন্সিগঞ্জের মিরকাদিম থানার নুরপুর গ্রামের ইসমাঈল হোসেনের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন থেকে ডুবে যাওয়া লঞ্চ এমবি মর্নিং বার্ড লঞ্চের গ্রিজার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় বুড়িগঙ্গার শ্যামবাজার উল্টিগঞ্জ পয়েন্টে ঢাকা-চাঁদপুর রুটের ময়ূর-২ লঞ্চের ধাক্কায় ঢাকা-মুন্সিগঞ্জ রুটের এমবি মর্নিং বার্ড লঞ্চ ডুবে যায়। এ ঘটনায় মঙ্গলবার বিকাল পর্যন্ত ৮ জন নারী, ৩ জন শিশুসহ ৩৪ জন যাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হল।
এ দুর্ঘটনায় ‘অবহেলাজনিত মৃত্যু’ ঘটানোর অভিযোগ এনে ইতোমধ্যে ময়ূর-২ লঞ্চের মালিক, মাস্টারসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে নৌ পুলিশ। এছাড়া নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় এবং বিআইডব্লিউটিএ-এর পক্ষ থেকে আলাদা দুটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

উপরে