ঢাকা, রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০
আপডেট : ৩ জুন, ২০২০ ১৮:১০

বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র, বর্ণবাদী মন্তব্য করে ক্ষমা চাইলেন ‘মিস মালয়েশিয়া’

অনলাইন ডেস্ক
বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র, বর্ণবাদী মন্তব্য করে ক্ষমা চাইলেন ‘মিস মালয়েশিয়া’


অনলাইন ডেস্ক
যুক্তরাষ্ট্রের বিক্ষোভ নিয়ে বর্ণবাদী মন্তব্য করে ক্ষমা চাইলেন সাবেক ‘মিস ইউনিভার্স মালয়েশিয়া’। কৃষ্ণাঙ্গদের ‘থামা উচিত’ মন্তব্য করে বিতর্কের মুখে পড়েন সামান্থা কেটি জেমস। এরই প্রেক্ষিতে ক্ষমা চান তিনি।
ইয়াহু নিউজ জানায়, কয়েক দিন আগে ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট দেন সামান্থা। সেখানে কৃষ্ণাঙ্গদের উদ্দেশ করে লেখেন, “থামো। এ ঘটনাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে নিজেকে শক্তিশালী করো।” আরও বলেন, ‌কৃষ্ণাঙ্গ হিসেবে আমেরিকায় জন্মের জন্য ‘তারা নির্বাচিত’। এর মধ্যে নির্দিষ্ট শিক্ষা আছে।
এ মন্তব্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। ‘ক্রেজি রিচ এশিয়ানস’-খ্যাত মালয়েশীয় বংশোদ্ভূত ইংলিশ তারকা হেনরি গোল্ডিংসহ অনেকেই সামান্থার পোস্টে মন্তব্য করে নিন্দা জানান।
২৫ বছরের এই সুন্দরীর ‘মিস ইউনিভার্স মালয়েশিয়া’র মুকুট কেড়ে নিতে এক অনলাইন পিটিশনে ইতিমধ্যে ৮০ হাজারের বেশি মানুষ স্বাক্ষর করেছেন।
মঙ্গলবার তীব্র প্রতিবাদের মুখে বাধ্য হয়ে আরেক পোস্টে ক্ষমা চান সামান্থা। সেখানে জানান, আঘাত দেওয়ার জন্য দুঃখিত। তিনি অন্যদের মতো করে বিষয়টি বুঝতে পারেননি। তবে ‘কালো হিসেব নির্বাচিত’ বলার পক্ষে তিনি দীর্ঘ যুক্তি দেন।
উল্লেখ্য, সামান্থা ২০১৭ সালে মালয়েশিয়ার হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নেভাদায় মিস ইউনিভার্সের মঞ্চে অংশ নেন। তিনি নিজ দেশে মডেলিং ও অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত।

উপরে