ঢাকা, রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৩:৪০

সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের চাবি চুরি, অতঃপর...

অনলাইন ডেস্ক
সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের চাবি চুরি, অতঃপর...

সিরাজগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিনরুমের ভিতর থেকে রিভার্সেল হ্যান্ডেল (চাবি) চুরি হয়ে গেছে। নিরাপত্তা প্রহরী থাকাসত্ত্বেও রবিবার রাতে সিরাজগঞ্জ বাজার ষ্টেশনে ট্রেনটি অবস্থানকালে ইঞ্জিনরুম থেকে এ চুরির ঘটনা ঘটে। 

আর একারণে নির্দিষ্ট সময় সকাল ছয়টায় ট্রেনটি ছেড়ে যাবার কথা থাকলেও সাড়ে তিনঘণ্টা পর সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। এতে ট্রেনের কয়েক শতাধিক যাত্রীকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। টানা তিনদিন ছুটির পর যে সকল যাত্রী সিরাজগঞ্জ থেকে অফিস করতে ট্রেনে উঠছিল সময়মত পৌঁছাতে না পারায় তারাও চরম হতাশায় ভুগছিল। 

সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেন ড্রাইভার রবিউল ইসলাম জানান, ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটি রাত সাড়ে দশটার দিকে সিরাজগঞ্জ বাজার স্টেশনে পৌঁছে। এরপর ট্রেনের জানালা দরজা-বন্ধ রেখে তিনিসহ স্টাফরা যার যার মতো বাসায় চলে যায়। সকালে ট্রেনের ইঞ্জিন চালু করতে গিয়ে দেখা যায় রিভার্সেল হ্যান্ডেল নেই। পরে কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে দ্রুত ঈশ্বরদী থেকে রিভার্সেল হ্যান্ডেল পাঠানোর জন্য বলা হয়। সকাল সাড়ে নয়টার দিকে রিভারর্সেল হ্যান্ডেলটি পৌঁছালে ইঞ্জিনটি পুরোপুরি সচল করে জামতৈল স্টেশন থেকে সাড়ে নয়টার দিকে ট্রেন ছেড়ে দেয়া হয়। তিনি আরো জানান, রিভার্সেল হ্যান্ডেলের কারণে ইঞ্জিন চালুসহ ঘোরানো সম্ভব ছিল না। তবে সকাল নয়টার দিকে বিকল্প পদ্ধতিতে ইঞ্জিনটি চালু করে বাজার স্টেশন থেকে জামতৈল স্টেশনে নেয়া হয়েছিল। 

সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের পরিচালক জানান, রিভার্সেল হ্যান্ডেলটি কিভাবে চুরি হলো তা বোধগম্য নয়। নিয়ম অনুযায়ী হ্যান্ডেলটি ইঞ্জিন বন্ধ করার পর ড্রাইভারের সাথে নিয়ে যাবার কথা। কিন্তু সে তা নেয়নি। আর চুরির বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

এদিকে, ট্রেনের যাত্রী আবু হোসেন ও ইমতিয়াজ হোসেন জানান, কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণেই তাদেরকে ভোগান্তিতে পড়তে হয়। নিরাপত্তা প্রহরী এবং চালক যদি ঠিকমতো দায়িত্ব পালন করতো তবে চুরির ঘটনা ঘটত না। রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের গাফিলতির কারণে যাত্রীদের ভোগান্তি পড়া কোনভাবেই কাম্য নয়। তদন্তপূর্বক দায়ীদের শাস্তি দাবিও করেন যাত্রীরা। 

সিরাজগঞ্জ জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম জানান, চুরি যাবার কোন তথ্য আমাদেরকে দেয়া হয়নি। আমাদেরকে বলা হয়েছিল ইঞ্জিনে ত্রুটি দেখা দিয়েছে। পরে জেনেছি রিভার্সেল হ্যান্ডেল চুরি হয়েছে। তবে এবিষয়ে কোন অভিযোগ বা জিডি করা হয়নি। অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

উপরে